• বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪, ০১:৩৯ অপরাহ্ন
শিরোনাম
দেশের ক্ষুদ্র–মাঝারি উদ্যোক্তারা পাবেন ৫০ লাখ টাকা পর্যন্ত ঋণ, যেসব যোগ্যতা লাগবে ৭ দিনেও নৌ যোগাযোগ নেই, সেন্টমার্টিনে ফুরিয়ে আসছে চালের মজুদ প্রতিবারের মতো ঈদে চ্যানেল আইতে নতুন ৭ চলচ্চিত্র জঙ্গি হামলার ঘৃণার বিরুদ্ধে অবস্থান পাকিস্তানি অভিনেত্রীকে খুশবু খানকে গুলি করে হত্যা মহিলাদের নামাযের পোশাক কেমন হবে! ঈদকে সামনে রেখে সোনাগাজীতে নিত্যপণ্যের বাজার অস্থির আগামী শুক্রবার মক্কায় তাপমাত্রা ৪৪ ডিগ্রি, হজযাত্রীদের মানতে হবে যে নির্দেশনা শীর্ষ কমান্ডার নিহতের জেরে ইসরায়েলে শতাধিক রকেট ছুড়ল হিজবুল্লাহ যুক্তরাষ্ট্রের আহ্বানে গাজায় যুদ্ধবিরতির প্রস্তাবের প্রতিক্রিয়া জানাল হামাস ও পিআইজে

চাচা-ভাতিজার, ধান পাহারা দেওয়ার সময় বজ্রপাতে মৃত্যু

অনলাইন ডেস্ক / ৩৭৪ Time View
Update : মঙ্গলবার, ১২ অক্টোবর, ২০২১

কক্সবাজারের চকরিয়া উপজেলার পার্শ্ববর্তী লামা উপজেলার ফাইতং ইউনিয়নের বাঙ্গালী পাড়া এলাকায় টং ঘরে বসে ধানক্ষেত পাহারারত চাচা-ভাতিজা বজ্রপাতে নিহত হয়েছেন। সোমবার দিবাগত রাত সাড়ে ১২টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত দুইজন হলেন- চকরিয়া উপজেলার লক্ষ্যারচর ইউনিয়নের উত্তর লক্ষ্যারচর ৯ নম্বর ওয়ার্ডের পূর্ব পাড়ার ইসহাক আহমদের ছেলে এনামুল হক (৫২) ও তার ভাতিজা নবী হোসেনের ছেলে শহীদুল ইসলাম (১৫)।
তারা দীর্ঘদিন ধরে লামার ফাইতং এলাকায় চাষাবাদ করে আসছিল। তারা রাতে বাস করত হাতি থেকে রক্ষা পেতে গাছের উপর তৈরি করা দ্বিতল বিশিষ্ট টং ঘরে। ঘটনার সময় তাদের পরিবারের অন্যান্য সদস্যরা লক্ষ্যার চরের বাড়িতে থাকলেও চাচা-ভাতিজা টং ঘরের উপর বসে ধান পাহারা দিচ্ছিল। ওই সময় রাত সাড়ে ১২টার দিকে আকস্মিক বজ্রপাত হলে টং ঘরে এসে পড়ে। দুটি টংঘর সহ চাচা-ভাতিজা পুড়ে মারা যায়।

লক্ষ্যারচর ইউনিয়ন পরিষদের ৯ নম্বর ওয়র্ডের ইউপি সদস্য জিয়াবুল করিম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

উল্লেখ্য, বজ্রপাত নিহত শহীদুল ইসলামের পিতা নবী হোসেন ৭ বছর আগে একই এলাকায় ধানক্ষেত পাহারা দিতে গিয়ে বন্যহাতির আক্রমণে মারা যান। ওই ঘটনার পর থেকে লম্বা গাছের উপরে টং ঘর তৈরি করে ক্ষেত-খামার পাহারা দিয়ে আসছিল তার পরিবারের লোকজন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category

ফেসবুকে আমরা