• রবিবার, ২১ এপ্রিল ২০২৪, ১১:২৭ অপরাহ্ন

বিজেপিকে হটানোর লক্ষ্য নিয়ে গোয়া সফরে যাচ্ছেন মমতা

অনলাইন ডেস্ক / ৩৩৮ Time View
Update : বৃহস্পতিবার, ২৮ অক্টোবর, ২০২১

পশ্চিমবঙ্গের সর্বশেষ বিধানসভা নির্বাচনে বিপুল ভোটে জয় পায় তৃণমূল। এই জয়ের পর তৃণমূল আরও আত্মবিশ্বাসী হয়ে ওঠে। তৃণমূলের পক্ষ থেকে বলা হয়, এবার তারা পশ্চিমবঙ্গের বাইরে বিজয়ের পতাকা ওড়াবে। গোয়া ও ত্রিপুরা রাজ্যে বিধানসভা নির্বাচনে তারা সেখানকার ক্ষমতাসীন দল বিজেপিকে হটাবে এবং সেখানে গঠন করবে তৃণমূলের সরকার।

গতকাল বুধবার বীরভূমের তৃণমূল নেতা অনুব্রত মণ্ডল বোলপুরে সাংবাদিকদের বলেছেন, পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভা নির্বাচনের মতো ত্রিপুরা ও গোয়া বিধানসভার নির্বাচনে বিপুল ভোটে জিতবে তৃণমূল। বিজেপির শাসন থেকে মুক্ত হতে এই দুই রাজ্যের মানুষ এবার তৃণমূলকেই চায়।

অনুব্রত মণ্ডল বলেন, ‘আমি পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভা নির্বাচনের সময় বলেছিলাম, তৃণমূল ২২০-২৩০ আসনে জিতবে। নির্বাচনে ২১৩ আসন পায় তৃণমূল। এরপর পাঁচ বিজেপি বিধায়ক তৃণমূলে যোগ দিয়েছেন। তাই আবার বলছি, আসন্ন ত্রিপুরা ও গোয়া বিধানসভা নির্বাচনে বিপুল ভোটে জিতবে তৃণমূল। দুই রাজ্য থেকে বিদায় নেবে বিজেপি।’

অনুব্রত মণ্ডল বলেন, ত্রিপুরা বিধানসভার ৬০ আসনের মধ্যে তৃণমূল ৪০ থেকে ৪৫টি আসন পাবে। আর গোয়া বিধানসভার ৪০ আসনের মধ্যে তৃণমূল পাবে ৩০ আসনে।
গোয়া বিধানসভার আসনসংখ্যা ৪০। আগামী বছরের শুরুতে সেখানে বিধানসভা নির্বাচন হওয়ার কথা।

ত্রিপুরা বিধানসভার আসনসংখ্যা ৬০। ত্রিপুরায় ২০২৩ সালের ফেব্রুয়ারি-মার্চে নির্বাচন হওয়ার কথা।

বর্তমানে গোয়া ও ত্রিপুরা উভয় রাজ্যেই ক্ষমতায় আছে বিজেপি। রাজ্য দুটিতে জয়ের লক্ষ্য নিয়ে এবার মাঠে নেমেছেন মমতা। ত্রিপুরায় ইতিমধ্যে তৃণমূল নির্বাচনী প্রচার শুরু করেছে।

মমতা আজ প্রথম প্রচার শুরুর লক্ষ্যে গোয়ায় যাচ্ছেন। গোয়ায় তৃণমূলের দপ্তর খোলা হয়েছে।

গোয়ার সাবেক মুখ্যমন্ত্রী লুইজিনহো ফেলেইরো গত সেপ্টেম্বরে তৃণমূলে যোগ দেন। মমতা ইতিমধ্যে তাঁকে তৃণমূলের সর্বভারতীয় সহসভাপতির আসনে বসিয়েছেন। অন্যদিকে ত্রিপুরাতেও দপ্তর খুলে জোরালো প্রচারে নেমেছে তৃণমূল।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category

ফেসবুকে আমরা