• বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০২৪, ০৪:০৭ অপরাহ্ন
শিরোনাম
সুশৃঙ্খল নিয়ম-নীতির নামাজ অন্যায় কাজ থেকে বিরত রাখে মানুষের কৃতকর্ম ও গুনাহের ফল হিসেবে আখ্যা দেয়- বৃষ্টি চেয়ে নামাজ পড়ার নিয়ম বাশফুল থেকে চালের উৎপাদন সম্ভব- বাশ চাল পুষ্টিগুণ অনেক সমীচীন নয় দুনিয়ার গিবত পরকালের আপদ সারাদেশে কমছেই না গরমের তীব্রতা, ফের বাড়ল ‘হিট অ্যালার্ট’–এর মেয়াদ সালমানের বাড়িতে গুলি হামলার ঘটনায় দ্বিতীয় অস্ত্র উদ্ধার গত মঙ্গলবার সাংবাদিকদের ওপর হামলার ঘটনায় শিল্পী সমিতির দুঃখ প্রকাশ শেষ লিভারপুলের শিরোপা স্বপ্ন এভারটনের মাঠে হেরে প্রায়  এবার চেন্নাইয়ের মাঠেও দুশ্চিন্তা বাড়াচ্ছেন মুস্তাফিজও আমেরিকাকে বেকায়দায় ইরানের হাতে নতুন অস্ত্র, রেহাই পাবে না আমেরিকার ‘অদৃশ্য’ যুদ্ধবিমানও!

নাঈমের নামে ফুটওভার ব্রিজ নির্মাণ করা হবে: তাপস

অনলাইন ডেস্ক / ৩২১ Time View
Update : বুধবার, ১ ডিসেম্বর, ২০২১

সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত নটরডেম কলেজের শিক্ষার্থী নাঈম হাসানের নামে ফুটওভার ব্রিজ নির্মাণ করা হবে বলে ঘোষণা দিয়েছেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) মেয়র শেখ ফজলে নূর তাপস।

বুধবার দুপুরে দুর্ঘটনাস্থল পরিদর্শন শেষে গণমাধ্যমকে তিনি এ কথা বলেন। তাপস বলেন, এখানে আগে থেকেই পথচারী পারাপারে আন্ডারপাসের ব্যবস্থা করা হয়েছিল। কিন্তু এই পথচারী পারাপারের ব্যবস্থা বিভিন্ন দখলের কারণে অকার্যকর হয়ে আছে। যার কারণে সাধারণ মানুষ নিচে নেমে পার না হয়ে সড়কের ওপর দিয়ে পার হতে বাধ্য হন। সুতরাং আমাদের নতুনভাবে চিন্তা করতে হচ্ছে। আমরা আন্ডারপাস কার্যকর করবো। যত দিন যাবে মানুষের চলাচল তত বাড়বে। আমার মতে আন্ডারপাস যথেষ্ট না, যে কারণে ফুটওভার ব্রিজ নির্মাণের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। তিনি আরও বলেন, উপর দিয়ে ফুটওভার ব্রিজ নির্মাণ করা যায় কি না সেটা বিশ্লেষণ করতে পরিদর্শন করেছি আমরা। সিদ্ধান্ত নিয়েছি এখানে ফুটওভার ব্রিজ নির্মাণ করা হবে। সেটা নাঈমের নামে উৎসর্গ করা হবে। ট্রাফিক ব্যবস্থাপনা প্রসঙ্গে তাপস বলেন, পুরো চত্বর নিয়ে একটি ট্রাফিক ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম নিশ্চিত করতে হবে। অতীতে অনেক উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে, সেটাকে কার্যকর করা যায়নি। এখানে কয়েকমুখী যাতায়াত ব্যবস্থা। তাই প্রতিটি পথের যাতায়াতকে পরিকল্পনার মাধ্যমে সুষ্ঠু ব্যবস্থাপনার আওতায় আনতে হবে। আমরা সেটাই এখন গ্রহণ করবো। তিনি বলেন, সুদূরপ্রসারী চিন্তা করতে হলে একটা কিছু করে ফেললেই সেটা কাজে দেবে না। আমরা চাই কার্যকর পরিস্থিতি। কারণ যত দিন যাবে এই জায়গায় যান চলাচল বাড়বে। তাই আগামী ১৫ বছর মাথায় রেখে আমাদের কাজ করতে হবে। সিটি করপোরেশনের গাড়ির ধাক্কায় শিক্ষার্থী নিহতের প্রসঙ্গে তিনি বলেন, আমি দায়িত্ব নেওয়ার পরে যখন লক্ষ করি আমাদের পর্যাপ্ত গাড়িচালক নেই তখন নিয়োগের উদ্যোগ নিয়েছি। আমরা ৫০ জন ভারী গাড়িচালক নিয়োগের জন্য বিজ্ঞপ্তি দিয়েছিলাম। ৩২ জনের চূড়ান্ত তালিকা করতে পেরেছিলাম। কিন্তু বিআরটিএ থেকে যথাসময়ে লাইসেন্স না দেওয়ার কারণে মাত্র ১৯ জনকে নিয়োগ দিতে পেরেছি। কাঠামোতে ১৮৩টি পদ আছে কিন্তু সে অনুযায়ী আমাদের পর্যাপ্ত গাড়িচালক নেই। কিন্তু যে ঘটনাটা ঘটেছে, আমাদের নিয়মিত গাড়িচালককেই দায়িত্ব দেওয়ার ছিল। সে দায়িত্ব অবহেলা করে-গাফিলতি করে আরেকজনকে ভাড়া দিয়েছে, যা জঘন্যতম অন্যায় হয়েছে। এর মধ্যে আমরা ব্যবস্থা নিয়েছি। আমরা আরেকজনকে শনাক্ত করেছি যে দায়িত্ব অবহেলা করেছে, তাকেও আমরা সাময়িকভাবে বরখাস্ত করেছি। এই বিষয়টি আমরা কঠোরভাবে মোকাবিলা করবো।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category

ফেসবুকে আমরা