• বুধবার, ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৫:৩৫ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
একুশের প্রথম প্রহরে ফুলপুরে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে পুস্পস্তবক অর্পন” কেন্দ্রীয় শহিদ মিনারে ভাষা শহীদদের প্রতিরাষ্ট্রপতি-প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা নবীনগরে পরান কম্পিউটার ইনস্টিটিউটের পুনর্মিলনী অনুষ্ঠিত। পূর্বধলায় জাতীয় প্রাথমিক শিক্ষা পদক প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত সাংসদ খাদিজাতুল আনোয়ার সনির সংসদ সদস্য পদ বাতিল চেয়ে রীট! আবারও বিয়ের গুঞ্জন, নিশ্চুপ ফারাজ! ফুলপুর প্রেসক্লাবের সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত ছাগলনাইয়ায় খামারি হত্যা: গ্রেপ্তার ২ ১৯৬৯ এর গণঅভ্যুত্থানে নিহত সেনবাগের ৪ শহীদের রাষ্ট্রীয় স্বীকৃতি আজো মেলেনি চট্টগ্রামে ৩১তম আন্তর্জাতিক বাণিজ্য( CITF)এর মেলার উদ্বোধন

পর্দার অন্তরালে সিন্ডিকেট গোটা রেলওয়ের টিকিট গিলে খাচ্ছে- রেলওয়ের! রেলওয়ের!! রেলওয়ের!!!

ইকবাল খান প্রতিনিধি / ১১২ Time View
Update : মঙ্গলবার, ২৭ জুন, ২০২৩

সড়ক পথে বাসের ভাড়া দ্বিগুন-তিনগুন আদায় বাস-ট্রেনের টিকিট সোনার হরিণ, ডিজিটাল সিন্ডিকেটের খপ্পড়ে ট্রেনের টিকিট- নাড়ির টানে গ্রামের পথে-

ট্রেনের স্ট্যান্ডিং টিকিট বাংলাদেশ রেলওয়ের যাত্রীসেবার মান কমতে কমতে সর্বনিম্নে নেমেছিল কয়েক বছর আগে। এরপর একের পর এক নতুন ট্রেন চালু, পুরাতন রেকের বদলে নতুন রেক পুনঃস্থাপন, অনলাইনে টিকিট বিক্রি, টিকিট ছাড়া স্টেশনে প্রবেশ করতে না দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। তারপরই বদলে যেতে শুরু করেছে যাত্রীসেবার মান, বাড়ছে সুযোগ সুবিধা। যাত্রা হচ্ছে নির্ঝঞ্ঝাট ও বাধাহীন। তবে পর্দার আড়ালে অন্য ঘটনা। নিবন্ধন করে অনলাইনে টিকিট কাটার নিয়ম করার পর ট্রেনের টিকিট কার্যত সিন্ডিকেটের কবলে পড়ে গেছে। সাধারণ মানুষ এখন আর টিকিট কাটতে পারেন না। অনলাইনে টিকিট কাটার চেষ্টা করলেই টিকিট নেই জানানো হয়। অথচ ভিন্নপথে সিন্ডিকেটের মাধ্যমে বেশি টাকা দিয়ে টিকিট কিনতে চাইলে তা সহজেই মেলে। রেল কর্তৃপক্ষের অসৎ কর্মকর্তারা নিজেদের সিন্ডিকেট ব্যবসা বাধাহীন করতে গণমাধ্যমের কিছু সাংবাদিকদের হাত করেছে। ফলে তারা নির্বিঘেœ ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছে। আর সাধারণ মানুষ টিকিট কাটতে চাইলে আসনবিহীন টিকিট কাটতে পারছেন। খোঁজ নিয়ে জানা যায়, এবার ঈদযাত্রায় আসনবিহীন বা স্ট্যান্ডিং টিকিট বিক্রি হচ্ছে মোট আসনের ২৫ শতাংশ। ঢাকা, ঢাকা ক্যান্টনমেন্ট, বিমানবন্দর ও জয়দেবপুর স্টেশন থেকে এসব টিকিট পাওয়া যাচ্ছে। যাত্রার দিন আসনবিহীন টিকিট স্টেশনের কাউন্টার থেকে কেনা যায়। গতকাল কমলাপুর রেলস্টেশনের ম্যানেজার মোহাম্মদ মাসুদ সারওয়ার জানান, দুই-তিনটি ট্রেনে ছাড়তে বিলম্ব হলেও প্রায় সবগুলো ট্রেনই যথাসময়ে যথা নিয়মে চলাচল করছে। ট্রেনে এখন আর আগের দিন নেই। ট্রেনযাত্রা এখন আরও সহজ হয়েছে। টিকিট ছাড়া কাউকে স্টেশনে প্রবেশ করতে না দেয়ায় মনে হচ্ছে কমলাপুর রেলস্টেশন ফকফকা। টিকিটের জন্য যাত্রীদের কোনো ভোগান্তি নেই। কিন্তু পর্দার অন্তরালে সিন্ডিকেট গোটা রেলওয়ের টিকিট গিলে খাচ্ছে। গতকাল সংবাদ সম্মেলন করে কমলাপুর রেলস্টেশন ম্যানেজার মোহাম্মদ মাসুদ সারওয়ার বলেন, শুধুমাত্র রংপুর এক্সপ্রেস আসতে কিছুটা বিলম্ব হয়েছিল। আমরা আগে দেখেছি সকালের ট্রেন রাতে গিয়েছে। মানুষ টিকিট কাটতে ভোগান্তিতে পড়েছেন। সোমবার সারাদিন মোট ৫৩ জোড়া ট্রেন ছেড়ে যাবে। ১০৬টি ট্রেনের মাঝে ৩ জোড়া স্পেশাল ট্রেন ছেড়ে যাবে। এছাড়া ৪১ জোড়া আন্তঃনগর ট্রেন রয়েছে। তবে সব মিলিয়ে মোট ট্রেন ৫৩ জোড়া ট্রেন চলাচল করবে। তিনি বলেন, ঈদে শতভাগ টিকিট অনলাইনে পাওয়ায় যাত্রীদের কোনো ভোগান্তি নেই। কোনো বিষয় নিয়ে তাদের অভিযোগও নেই।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category

ফেসবুকে আমরা