• বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪, ০৮:০৮ অপরাহ্ন

মহাসড়ক অবরোধ , গোপালগঞ্জে সহিংসতায় নিহত ১

গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি / ২৩ Time View
Update : বৃহস্পতিবার, ১৬ মে, ২০২৪

গোপালগঞ্জে উপজেলা নির্বাচন পরবর্তী সহিংসতায় সদর উপজেলার চন্দ্রদিঘলিয়া গ্রামে গুলিবিদ্ধ হয়ে ওসিকুর ভূইয়া নামের এক ব্যক্তি নিহত ও ৫ জন আহতের ঘটনায় আগামী রোববার ডিসি অফিস ঘেরাওয়ের ঘোষনা দিয়ে ২য় দিনের মতো মহাসড়ক সঅবরোধ কর্মসূচী শেষ করেছে বিক্ষুব্দ জনতা।

চন্দ্রদিঘলিয়া এলাকায় এখনো থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে। সেখানে যেকোন অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে অসংখ্য আইন-শৃংখলা বাহিনীর সদস্যরা টহল অব্যাহত রেখেছে, রয়েছে নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেটও। এছাড়া বিজিবিও মোতায়েন রয়েছে ওই এলাকায়।

বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে ১১ টায় ঢাকা-খুলনা মহাসড়কের চন্দ্রদিঘলীয়ায় সকল শ্রেনীপেশার ও আওয়ামী লীগ, ছাত্রলীগ, যুবলীগ, ষে¦চ্ছাসেবকলীগের কয়েক হাজার মানুষ মহাসড়ক অবরোধ করে। তারা রাস্তায় গাছের গুড়ি ফেলে, টায়ার জ্বালিয়ে নিহত ওসিকুর ভূইয়ার হত্যাকারীদের ফাসির দাবীতে মুহুর্মুহ মিছিল-স্লোগান দিয়ে এলাকা প্রকম্পিত করে। অসংখ্য আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা রাস্তা ঘিরে রাখলেও মহাসড়ক অবরোধ ঠেকাতে ব্যার্থ হয় তারা।

ফরিদগঞ্জে ইটভাটার মালিককে চার লাখ টাকা জরিমানা
এতে করে ঢাকা-খুলনা মহাসড়কে কয়েক’শ যানবাহন আটকা পড়ে। প্রচন্ড গরমে ঘন্টার পর ঘন্টা দূর্ভোগ পোহাতে হয় যাত্রীদের। অবশেষে দুপুর একটার সময়ে আগামী রোববার ডিসি অফিস ঘেরাওয়ের ঘোষনা দিয়ে ২য় দিনের মতো মহাসড়ক সঅবরোধ কর্মসূচী শেষ করেছে বিক্ষুব্দ জনতা।

এর আাগেরদিন বুধবার দুপুরে হাজার হাজার লোক জেলা শহরে শোক র‌্যালী করেছে। র‌্যালীটি বঙ্গবন্ধু কলেজ মাঠ থেকে শুরু করে শহরের প্রধান প্রথান সড়ক প্রদক্ষিন করে ঢাকা-খুলনা মহাসড়কের গোপালগঞ্জ শহর তলীর চেচানিয়াকান্দিতে ঘন্টাব্যপী ঢাকা-খুলনা মহাসড়ক অবরোধ করে রাখে বিক্ষুব্ধ জনগন। পরে গোপালগঞ্জের জেলা প্রশাসক কাজী মাহবুবুল আলম ও পুলিশ সুপার আল বেলী আফিফা ওসিকুর ভূইয়ার হত্যাকারীদের দ্রুত গ্রেফতার করে বিচারের আওতায় আনার আশ্বাস দিলে অবরোধ তুলে নেয় বিক্ষুব্দ জনতা।

গোপালগঞ্জ সদর থানার ওসি মোহাম্মদ আনিচুর রহমান বলেছেন, পরিস্থিতি আইন-শৃংখলা বাহিনীর নিয়ন্ত্রনে রয়েছে। এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। ওসিকুর ভূইয়া নিহতের ঘটনায় এখন পর্যন্ত থানায় মামলা হয়নি বলে জানান ওসি।

প্রসঙ্গত : মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে চন্দ্রদিঘলিয়া হাইস্কুলের সামনে গোপালগঞ্জ সদর উপজেলা নির্বাচন পরবর্তী আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে পরাজিত প্রার্থী লিয়াকত আলি ভুইয়া এবং বিজয়ী প্রার্থী কামরুজ্জামান ভূঁইয়ার সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ হয়।

সংঘর্ষে বেশ কয়েকটি ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ও বাড়িঘর ভাঙচুরের ঘটনা ঘটে। এসময় গোপালগঞ্জ সদর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে বিজয়ী চেয়ারম্যান কামরুজ্জামান ভূইয়ার সমর্থকরা বি.এম লিয়াকত আলী ভূঁইয়ার এক সমর্থককে মারধর করে। এরই জের ধরে লিয়াকত আলী ভুইয়ার সমর্থকরা সঙ্ঘবদ্ধ হয়ে বিজয়ী প্রার্থী কামরুজ্জামান ভূঁইয়ার সমর্থক এবং তাদের বাড়িতে হামলা চালায়।

পরবর্তীতে উভয় পক্ষের লোকজন সংঘবদ্ধ হয়ে দেশীয় অস্ত্রে সজ্জিত হয়ে চন্দ্রদিঘলীয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের সামনে সংঘর্ষে লিপ্ত হয়। এসময় কামরুজ্জামান ভূঁইয়ার সমর্থকরা গুলি চালালে ৬ জন গুলিবিদ্ধ হয়। তাদেরকে গোপালগঞ্জ ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক ওসিকুর ভূইয়াকে মৃত ঘোষনা করেন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category

ফেসবুকে আমরা